ভিডিও গেমের অনিশ্চিত জগত

0

 ভিডিও গেমের অনিশ্চিত জগত 

( সত্য ঘটনা অবলম্বনে )

আজ থেকে প্রায় তিন মাস আগের কথা । আমি নতুন ফোন কিনি । পুরানো ফোনটি তখন ঘরে পড়ে থাকে । সে সময় সেটি আমার ছোট ভাই বাহার ব্যবহার করা শুরু করে । 

বয়স তাঁর সবে মাত্র ১৩ বছর । প্রথম প্রথম সে ছোটখাটো গেমস খেলতো । পরে একদিন দেখি , সে অনলাইন ব্যাটল গেম ফ্রি ফায়ার ইন্সটল করে । এটা দেখে আমি প্রথমে খানিকটা অবাক এবং হতভম্ব হয়ে গেলাম । 

কিছুদিন পরে খেয়াল করলাম , সে এই গেমে আসক্ত হয়ে গেছে । আমি তখন তাকে বারবার বুঝালাম , আমার মেজো ভাই বুঝিয়েছে , কিন্তু কোনো লাভ হয় নি । 

এরপর প্রায় অনেকদিন হয়ে গেল । গত ২২ রমজানের কথা । সে একটা নতুন মোবাইল কিনে । জিজ্ঞাসা করলাম , টাকা কই পেয়েছ ? বললো , ফ্রি ফায়ার আইডি বিক্রি করে কিনেছে । 

শুনে আমার প্রচন্ড রাগ উঠে । তারপরও যথাসাধ্য স্বাভাবিক থাকার চেষ্টা করি । আমি তাকে বললাম , যা করেছিস , যথেষ্ট হয়েছে । নতুন এই মোবাইলে ‌কো‌নো অনলাইন ব্যাটল গেম খে‌লিস না । সে আমার নিকট ওয়াদা কর‌লো । ফ‌লে আ‌মি তার মোবাই‌লে ওয়াই-ফাই কা‌নেক্ট ক‌রে দেই । গতকাল রা‌তে তারাবীহ প‌ড়ি‌য়ে বাসায় আ‌সি । বাহার তখন বারান্দায় ব‌সে ছিল । আ‌মি হঠাৎ ক‌রেই বারান্দায় যাই । গি‌য়ে দে‌খি , সে আবার ফ্র‌ি ফায়ার ইনস্টল ক‌রে‌ছে । আ‌মি তখন তার মোবাইল ‌থে‌কে সেটা ডিলেট ক‌রে ‌‌দেই । সে কয়েকবার অনূয় ‌বিনয় ক‌রে , কিন্তু আ‌মি তা‌কে বকা দি‌য়ে থা‌মি‌য়ে দেই । 

‌কিছুক্ষণ পর আমার মে‌জো ভাই আমা‌কে বল‌লো , আজ সকা‌‌লে বাহারের‌ ‌ফেইসবুক আই‌ডি‌তে এক‌টি ফ্রি ফায়ার ডায়মন্ড ‌সেল পেজ থে‌কে মে‌সেজ আ‌সে । তখন আ‌মি বাহা‌‌রের আই‌ডি চেক ক‌রি । ‌সেখা‌নে আ‌মি দেখ‌তে পাই , সে ওই পেজ থেকে 2500 টাকার ডায়মন্ড কি‌নে । 

তারপর ঘ‌‌টে যায় , অ‌নেক কা‌হিনী । তা বলা সম্ভব নয় । 

দোয়া ক‌‌রি , আল্লাহ যেন এই ব্যা‌ধিমূলক গেমস থে‌কে সবাই‌কে রক্ষা ক‌রেন । আ‌মিন ।

Abdur Rahman Al Hasan 

Telegram 

Dangerous video games FB Official








একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0মন্তব্যসমূহ
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন (0)

#buttons=(আমি সম্মত !) #days=(20)

আসসালামু আলাইকুম, আশা করি আপনি ভালো আছেন। আমার সম্পর্কে আরো জানুনLearn More
Accept !